শুক্রবার , জুন ২২ ২০১৮
Home / সর্বশেষ খবর / যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালে কাজী হায়াৎ

যুক্তরাষ্ট্রের হাসপাতালে কাজী হায়াৎ

শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন চলচ্চিত্র পরিচালক-প্রযোজক কাজী হায়াৎ। সেখানে রয়েছেন তার ছেলে কাজী মারুফ।

নিউইয়র্ক থেকে কাজী মারুফ ফেসবুকে জানান, গত ৬ মার্চ উন্নত চিকিৎসার জন্য নিউ ইয়র্ক যান কাজী হায়াৎ।
কাজী মারুফ বলেন, ‘আমার বাবার হার্ট থেকে একটি আর্টারি খুলে দেওয়ার জন্য নিউ ইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালের ডাক্তার শর্মাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। এনজিওপ্লাস্টিক সফল হয়েছে। আর ধন্যবাদ জানাই ঢাকার ডাক্তার জাহাঙ্গীর কবিরকে যিনি ২০০৫ সালে আমার বাবার ওপেন হার্টসার্জারি করেছিলেন।’

১৯৯৩ সালে কাজী হায়াৎ-এর হার্টে প্রথম সমস্যা দেখা দেয়। তখন তার হার্টে একটি ব্লক ধরা পড়েছিল। তখন তিনি ভারতের বিরলা হার্ট সেন্টারে গিয়ে চিকিৎসা নেন।

এরপর ২০০৪ সালে আবারও সমস্যা দেখা দেয়। তখন তার হার্টে ৪টি রিং বসানো হয়। পরবর্তীতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ওপেন হার্ট সার্জারি করা হয়।

গত জানুয়ারি মাসে নতুন করে হার্টে সমস্যা দেখা দিলে এই নির্মাতা প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্যের জন্য আবেদন করেন। তারপর প্রধানমন্ত্রী তাকে ১০ লাখ টাকা অনুদান দেন। তিনি এখন যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসাধীন আছেন।

কাজী হায়াৎ ১৯৭৪ সালে পরিচালক মমতাজ আলীর সঙ্গে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ শুরু করেন। পরবর্তীতে চলচ্চিত্রকার আলমগীর কবিরের সঙ্গে ‘সীমানা পেরিয়ে’ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেন।

১৯৭৯ সালে ‘দি ফাদার’ছবিটি পরিচালনার মধ্যে দিয়ে পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। কাজী হায়াৎ অর্ধশতাধিক চলচ্চিত্র পরিচালনা করেছেন। তিনি অর্জন করেছেন বেশ কয়েকটি পুরস্কার।

Comments

comments

Check Also

সকালে বাবা দুপুরে ছেলে আর পারিনা, তাই দেশে ফিরে এলাম

সকালে বাবা দুপুরে ছেলে- এবার সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরলেন ৩৬ নারী শ্রমিক।তবে এক সাথে …

error: Content is protected !!